কথাবার্তা

কল্লোলিনী ক্যালব্যালানি কলকাতা যা ছিল তাই আছে | বিদেশে কয়েক বছর থাকলে মনে হয় যেন সেই দেশটা ফর্মুলা ওয়ান-এর গতিতে এগোচ্ছে অথচ কলকাতার গতিবেগ সেই ঘন্টায় ২০ কিমি-ই রয়ে গেছে | সেই ট্রাফিক-এর প্যানপ্যানানি , যেখানে-সেখানে রাস্তা পার হওয়া , ঢিকিস-ঢিকিস করে চলা বাসগুলো , গায়ের উপর হুমড়ি খেয়ে পড়া হকার , তিন চাক্কার অটো-র সার্কাস দুটো বাস-এর ফাঁক দিয়ে....মাল্টিপ্লেক্স কি আর পাল্টি-য়ে দেবে শহরের আসল রং - তাই , কলিকাতা আছে কলিকাতাতেই !!

কলিকাতা | কলকাতা | |

১০৭টি মন্তব্য

Dipa Bhattacharjee
3 others like this
তারিখ : August 25th, 2012 at 11:53 AM
Tram r dhong-dhong aowaj..tana rikhshar jhunjhun- ee..oi j teen chakar auto r pip pip..bus er vir..rastar jam..East Bengal,Mohonbagan..meeting r sathe michil o bote..Victoria r kpot-kopoti..Academy r theatre theke red road r alok nistobdota..coffee house e kobita theke boipara r soda gondho ..Ganga r ghat e bose nouko dekha..parar morer cha-er dokane ‘bangal-ghoti’ r menu card chulchera bishleson..paray ghora baul r gan..abr paser bari theke vasa “Could you be loved”..tar sathe ‘notun fosol’ multiplex, ccd r cappuccino..amon aro koto kichu mile amder sohor Kolkata..purono chonde se to dibbi jibito..karon seta tar nijossho ta..’first track’ sohore r onukorone tar sojib chauni ta k timtim e korie lav ki..’Kolikata’ Nee ‘Kolkata’ othoba ‘Kolkata’ Nee ‘kolikata’..se j dibbo tar nijer chonde..oi kothay ache j...”purono chal vat e bare’ kin2 obosshoi tar nijer gun-e..onner onu-korone noy..
atanu chatterjee
4 others like this
তারিখ : August 25th, 2012 at 2:58 PM
বিলুপ্ত প্রায় বাঙালীয়ানার স্মৃতি সৌধ হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা কিছু উন্নাষিক ফলক বাদে মোটের ওপর কোলকাতার আন্তর্জাতিকরন হয়েছে বইকি? মনুমেন্ট আর ভিক্টোরিয়ার গরবে গরবিনি মিনি স্কার্ট প্রিয় বাঙ্গালী তনয়া কিন্তু লেক গার্ডেন্স মুখীই।কেন?বলা বাহুল্য কলি যুগে এ শহরের নতুন ট্রেড মার্ক তো সাউথ সিটি।তেলে ভাজার রোম্যন্টিসিজম বা হারান মাঝির রসগোল্লা ভুলে জিমযাত্রী সিক্স প্যাকারদের পছন্দ এখন এক্সাইডের হলদিরাম।ঘড়ির কাটাকে থমকে রাখলে সে ঘড়ি অচল...তাই যুগ নামক হাউইয়ে চড়ে ভাসতে আমরা বাধ্য।তবে প্রশ্ন জাগে তখন যখন কলকাতার মানবিকতা এই উন্নয়নের চাকায় পিশে যায়।না হলে পথে পড়ে থেকে হাওড়া স্টেশনে লোক মারা যায়?অটোয় পাশে বসে থেকেও এক মা আরেক মায়ের সন্তান কে পড়ে যেতে দেখেও ডাক নেয় না? কল্লোলিনির বুকে আজ দামি সেলফোনের আধুনিকতা হয়ত আমাদের ১০ পা এগিয়ে দিয়েছে-তবে মানবিকতা যেন কোথায় সিফ্‌ট ডিলিট হয়ে যাচ্ছে।বা হয়তো কোলকাতা এগোচ্ছে বাসের কণ্ডাক্টারের সেই কথাটার মতো-"দাদা পিছনের দিকে এগিয়ে চলুন"!!
Nabanita Mazumder
2 others like this
তারিখ : January 15th, 2014 at 10:45 AM
কোলকাতা কে কি আর এখন "city of joy" বলা চলে? বোধই নয় I এখন আমাদের কল্লোলিনী কলকাতা যথেষ্ট কলঙ্কিত I খবরের কাগজ খুললেই প্রথম পৃষ্ঠায় মহিলা ধর্ষণ এর ভুরি ভুরি নিদর্শন পাওয়া যায় I দিনে দুপুরে চোর ডাকাতের দৌরাত্তের কথা তো বলাই বাহুল্য I এ ছাড়াও আগে কার দিনের চায়ের দোকানে অল্প বয়সী বেকার ছেলেদের দেশের ও দশের সম্মন্ধে আলোচনা তো দুরের কথা উল্টে এখন যা দেখা যায় তা হলো শুধু মেয়েদের দেখে হ্যানস্থা করা ও আজে বাজে টিটকারী মারা I বাঙালির সব চেয়ে বড় পুজো অর্থাৎ দূর্গা পুজোর আনন্দ অর্ধেক হয়ে যায় শুরু তেই পারার ক্লাব গুলোর চাদার উপদ্রপে I আজকালকার ছেলে মেয়েরা ভাড়ের চায়ের বদলে বেছে নিচ্ছে "Tea Junction" এর চা I আবার কেউ যদি কলেজে শারি পরে কোনক্রমে গিয়ে উপস্থিত হয়েও পরে তখন দেখা যায় বাকি যুবক, যুবতী এমন ভাবে দেখে যেন মনে হয় অন্য কোনো গ্রহ থেকে কেউ হঠাত এসে পরেছে I সর্বপরি আজকের শহর কোলকাতার লোক জনের মানসিকতার অনেক পরিবর্তন ঘঠেছে. তা যেমন কিছু দিকে ভালো তেমন বেশির ভাগই মন্দই বলা যায় I
atanu chatterjee
3 others like this
তারিখ : August 25th, 2012 at 9:47 PM
আরে...কোলকাতার এখন আসল পরিচয় টার কথা বলতেই তো ভুলে গেছি...করব লড়ব জিতব রে...তা দাদা কে যতোই তাড়িয়ে দিক...তবুও আমরা করেছি তো! কিন্তু কোলকাতায় এখনও চার টাকায় বাসে চড়া যায়।মাত্র ৫০ টাকা পকেটে গোটা দিন কাটানো যায়-গঙ্গার বুকে হাওয়া খাওয়া যায় বিনি পয়সায়-আর কলেজ স্ট্রীটে ১২ মাসের বই মেলায় লুকিয়ে প্রেম করা যায়-জঝম বৃষ্টিতে ময়দান দৌড়ে বেড়ানো যায়-লোড শেডিং এ ছাদে বসে গানের লড়াই খেলা যায়-৫ টাকায় মালাই খাওয়া যায়-কোলকাতাকে তাই ভিষন ভিষন ভিষন ভালো বাসা যায়!
Kaustav Mitra
2 others like this
তারিখ : August 25th, 2012 at 9:51 PM
দ্যাখো, আমার মনে হয় এই "পরিবর্তন" না হবার একটা সব থেকে বড় কারণ হলো ভারতের জনসংখা..যে দেশে ১২০ কোটি লোক বাস করে সেখানে "ট্রাফিক-এর প্যানপ্যানানি , যেখানে-সেখানে রাস্তা পার হওয়া , ঢিকিস-ঢিকিস করে চলা বাসগুলো , গায়ের উপর হুমড়ি খেয়ে পড়া হকার , তিন চাক্কার অটো-র সার্কাস দুটো বাস-এর ফাঁক দিয়ে...." এই সব থাকবে না এটা কখনই সম্ভব নয়!! তাই যত দিন এই জনসংখা না কমবে তত দিন এই ব্যাপারে কথা বলে খুব একটা লাভ হবে বলে মনে হয় না..তবে সাম্প্রতিক কিছু ঘটনা দেখে তো আজকাল "পরিবর্তন" চাইতেও একটু ভয়-ই করে!!
Roy
2 others like this
তারিখ : January 18th, 2014 at 1:30 PM
পার্ক স্ট্রীট-এর নাম বদলে মাদার টেরেসা সরণী হলেই কি আর সেই রাস্তার ঐতিহ্য বদলে যায় !! আবার উত্তর কলকাতায় পুরনো বাড়ি ভেঙ্গে ফ্ল্যাট হলে পাড়ার বয়েস কমে যায় , নতুন বাসিন্দাদের হইচইতে ই-যুগের ছোঁয়া লাগে | কলকাতা বদলাচ্ছে - মানতে কষ্ট হলেও এটাই নির্মম সত্য | বাসের ঢিকিস ঢিকিস , প্যানপ্যানানি ট্রাফিক , করছি-করব মনোভাব - এগুলোর পরিবর্তন না ঘটলেও ভলভো বাস , শহর জুড়ে মেট্রো পরিষেবার পরিকল্পনা , উড়ালপুল , শপিং মল - এই জিনিসগুলোর আমদানি শহরের মৌখিক পরিবর্তন ঘটিয়েছে...তবে , কলিকাতা তদ্দিন থাকিবে কলিকাতাতেই - যদ্দিন কলিকাতাবাসীর মন হাজার হাঙ্গামা , বন্ধ , পার্বণ পেরিয়েও কলিকাতা কলিকাতা করিবে !!
atanu chatterjee
তারিখ : August 27th, 2012 at 11:00 AM
গায়ের রঙ থেকে পাজামার সাইজ-সবই যখন পালটায় তখন কোলকাতা পালটে গেল বলে হা হুতাশ করাটা অনুচিত।তবে প্রশ্ন হল-এই বদলটা ভালো না খারাপ।বা হয়ত সে প্রশ্নও অবান্তর।কারনা ইতিহাসের কোন পরিবর্তন ভালো মন্দের নিক্তিতে মেপে হয় নি।সময়ই নির্ধারন করেছে কে ভালো আর কে পচা!তবে আজ মেট্রোর প্যাচ প্যাচে ভিড়ের পাশে ফুল্লি আসি ভলভো বাসের সহাবস্থান দেখে- সাদার্ন এভিনিউ এর ফুট পাথে কোন মাকে তরকারির খোসা রান্না করতে আর রুবির পাশে দিল্লি পাবলিক স্কুলে কোন মা কে তার বাতানুকূল গাড়ি থেকে নধর শিশু কে ক্লাসে ঢোকাতে দেখে-দশটা পাচটার জীবন যাপন থেকে ভোর রাত্তিরে সেক্টর পাচ থেকে কাজ সেরে বেড়োন আইটি সেক্টরের লোকদের দেখে একটা ব্যাপার স্পষ্ট-আজ কোলকাতার মধ্যে অনেক গুলো কোলকাতা আছে।কেউ বড় কেঊ বেটে কেউ মোটা কেউ সরু!এই বৈচিত্র্যময় ঐক্যই হয় একবিংশ শতকের কোল্কাতার পরিচয়
Bichhuu
তারিখ : September 8th, 2012 at 4:20 PM
kolkata achhe kolkata tei..aar thakbeo kolkata tei..... sohorta ektuo bodlayni..bodlechhe ekhankar maanushjon..aar taader chintadhara.... aajo bhorbela raastay darale ting ting kore ghonta baajiye rasta vibrate kore ek matha theke onyo mathay tram chhute যায়ে..আজ ও সকাল বেলায় গঙ্গার ঘাটে মন্ত্র পরে পুরোহিত গুলো আজ ও বিকেলে লোক বাবুঘাট যায় আর রাত্রে পার্ক স্ট্রীট ও যায় . তবে নর্দমার খোজ একটু বেশি রাখে... রাখতে হয় আর কি.... dengue হতে পারে .... এখানকার লোকজন raped case এর থেকে বেশি এটা নিয়ে চিন্তিত...
Sanghamitra Sen
তারিখ : October 31st, 2012 at 3:41 PM
যাদের বাবা মাদের বদলির চাকরি, এই আমার মতো , কোনদিন খুটে খুজতে ছোটবেলার পাড়ায় গিয়ে দেখবেন ; মনে হবে যেন ওই ছোটবেলার রোমান্টিকতা আর নেই . কিন্তু এক ই জায়গায় ছোট থেকে বড় হতে থাকলে জায়গাটা আর জায়গার মানুষ গুলো এক ই সাথে পালটায়; অথচ কিছুদিন দুরে থাকলেই বিবর্তন তা বড় বেশি চোখে পরে . রাজনীতি বা অর্থনীতি নয়, আমাদের ছা পোশা পাড়ার একান্ত আপন গলির হারিয়ে যাওয়া আকাশ টা বড্ড চোখে লাগে বৈকি .
prasanta sarkar
তারিখ : August 20th, 2013 at 6:15 PM
আমি যখন ছোট্টটি ছিলাম, আধ আধ কথা বলতাম তখম এক রকম ছিলাম আর এখন দাড়ি-গফ গজিয়ে আর একরকম চেহারা হয়েছে, কিন্তু আমি আমিই আছি, সুধু মাত্র আমার চেহারার পরিবর্তন হয়েছে, সুতরাং আমার চোখে কলিকাতা একই আছে সুধু রং ও রূপ একটু বদলেছে

মতামত দিন :-


চুম্বক (কথাবার্তার বিষয়)

Designed and Developed by : Notional Systems